‘চাকরি গেলে চাকরি দেব’, চড়কাণ্ডে অভিযুক্ত CISF জওয়ানের পাশে কোন সেলিব্রিটি?

আমাদের WhatsApp Group-এ যুক্ত হন👉 Join Now

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল কিছুদিন আগেই প্রকাশিত হয়েছে। মান্ডি লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। মান্ডি লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপি প্রার্থী কঙ্গনা রানাওয়াত বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন।

কিন্তু সদ্য ঘটে গেছে একটি ঘটনা। চন্ডীগড় এয়ারপোর্টে কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut) কে চড় মারার অভিযোগে একজন সিআইএসএফ মহিলা জওয়ানকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। সেই সিআইএসএফ মহিলা জওয়ান এর পাশে দাঁড়ালেন বলিউড সঙ্গীত শিল্পী বিশাল দাদলানি (Vishal Dadlani)। তার সাথে ওই মহিলার যদি চাকরি চলে যায় তবে তাঁকে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তিনি।

Vishal Dadlani cisf jawan job offer kanagana ranaut

সোশ্যাল মিডিয়াতে তিনি লিখেছেন, “আমি কখনই হিংস্রতা সমর্থন করি না, তবে আমি সেই কর্মীর ক্রোধের কারণ পুরোপুরি বুঝতে পারছি। যদি CISF দ্বারা তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়, আমি নিশ্চিত করব তাঁর জন্য একটি চাকরি অপেক্ষা করছে। জয় হিন্দ, জয় জওয়ান, জয় কিষান।” শুধু এটুকুই নয়, কঙ্গনা রানাওয়াতের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি সাসপেনশন সমর্থনকারীদের প্রশ্ন করেছেন, “কেউ যদি বলে, আপনার মাকে ১০০ টাকায় পাওয়া যায়, তাহলে আপনি কী করতেন?”

আসলে ঘটনাটা ঠিক কী ঘটেছিল?

বৃহস্পতিবার চন্ডীগড় এয়ারপোর্টে এক মহিলা সিআইএসএফ জওয়ান বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতকে (Kangana Ranaut) চড় মারেন। কিন্তু কেন চড় মেরেছিলেন সেই মহিলা জওয়ান? কী এমন অভিযোগ তাঁর কঙ্গনার বিরুদ্ধে? আসলে ঘটনাটির সূত্রপাত ২০২০ সালে। সেই সময় গোটা দেশ কৃষক আন্দোলনে উত্তাল হয়ে উঠেছে।

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত সেই সময় একজন বৃদ্ধার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দাবি করেছিলেন, ইনি হলেন বিলকিস বানো, শাইনবাগের আন্দোলনের উল্লেখযোগ্য মুখ। ১০০ টাকায় নাকি তাঁকে ভাড়া পাওয়া যায়। কঙ্গনার সেই মন্তব্যের পর দেশজুড়ে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। সাধারণ মানুষ থেকে পঞ্জাবি অভিনেতা দিলজিৎ দোসাঞ্জ কঙ্গনার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন।

আমাদের WhatsApp Group-এ যুক্ত হন👉 Join Now

বৃহস্পতিবার চণ্ডীগড় এয়ারপোর্টে কঙ্গনাকে দেখে পূর্বের সেই ঘটনাই টেনে এনে ওই মহিলা সিআইএসএফ জওয়ান বলেন, “দিল্লিতে যেই সময় কৃষকরা আন্দোলন করছিলেন সেই সময় কঙ্গনা বলেছিলেন ১০০-২০০ টাকা দিয়ে এদের ভাড়া পাওয়া যায়। আমার মা ওখানে সেইসময় আন্দোলন করছিলেন।”

কুলবিন্দর কৌর নামে সেই মহিলা জওয়ানকে CISF সংস্থা থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাঁকে পুলিশি হেফাজতেও নেওয়া হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের করা হয়েছে। CISF সংস্থার তরফ থেকে তদন্তের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।