Bengal Monsoon Update: এই সময় আবার হবে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে ঝড়-বৃষ্টি! রাজ্যে বর্ষা কবে ঢুকছে?

আমাদের WhatsApp Group-এ যুক্ত হন👉 Join Now

সম্প্রতি বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের কিছু স্থানের উপর দিয়ে বয়ে গেল ঘূর্ণিঝড় রিমাল (Cyclone Remal)। ঘূর্ণিঝড় চলাকালীন ঝড় বৃষ্টি সহ একাধিক তাণ্ডব চললেও আপাতত ভাবে জানা গেছে এর প্রভাব থেকে এখন পুরোপুরি ভাবে মুক্ত দক্ষিণবঙ্গ। তবে আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে কিছুদিন বৃষ্টির পর তাপমাত্রা আবারও বৃদ্ধি পাবে।

পূর্বের মতোই গরম ও অস্বস্তিকর আবহাওয়া আবারও ফিরে আসছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ৩ ডিগ্রি থেকে ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। আগামী কিছুদিনের জন্য আবহাওয়া কি রকম থাকবে তার ব্যাপারে বিস্তারিত আপডেট দিয়েছে হাওয়া অফিস। চলুন জেনে নেওয়া যাক

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব কাটতে না কাটতেই ইতিমধ্যে দক্ষিণ বঙ্গের তাপমাত্রা কিছুটা বেড়ে গিয়েছে। এই সময় বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি হওয়ার ফলে অস্বস্তিকর গরম আবহাওয়া বিরাজ করবে।

আগামী কিছুদিনের মধ্যে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকলেও আপাততভাবে দক্ষিণবঙ্গে তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই।  তবে আগামী বুধবার বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টিপাত হতে পারে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বাঁকুড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা,  নদিয়া  এই জেলাগুলিতে।

তারপরে আগামী বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার মুর্শিদাবাদ, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম ইতালি জেলাগুলিতে কিছু কিছু জায়গায় হালকা থেকে মাজার বৃষ্টি হতে পারে পাশাপাশি ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে দমকা হাওয়া বইবার সম্ভাবনা রয়েছে।

আমাদের WhatsApp Group-এ যুক্ত হন👉 Join Now

দেশের সপ্তম তথা শেষ দফার ভোট রয়েছে আগামী শনিবার। ঐদিন রাজ্যজুড়ে বজ্র বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া দপ্তর কর্তৃক খবর ভোটের দিন প্রায় সবকটি জেলাতেই হালকা থাকে মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপরে সোমবার  মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, বীরভূম, ও নদিয়ার কোন কোন স্থানে হালকা থেকে মাজারে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।  

আজ বুধবার উত্তরবঙ্গের কোচবিহার, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার এই তিন জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি দার্জিলিং এবং কালিম্পং জেলায় থাকছে ঝোড়ো হাওয়ার সতর্কতা। বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় রিমাল (Cyclone Remal) উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলির ওপরে নিম্নচাপ হিসেবে অবস্থান করছে।

এর প্রভাবে আগামী পাঁচ দিন জলপাইগুড়ি, কালিম্পং ও আলিপুরদুয়ার জেলায়  ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আবার ভারি থেকে উঠে ভারী বৃষ্টি হতে পারে আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহার জেলার কিছু কিছু স্থানে। আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে ওই স্থানগুলোতে কমলা সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে।

আগামী শুক্রবার দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং ও কোচবিহার জেলায় বৃষ্টিপাত হতে পারে। তারপরের দিন অর্থাৎ শনিবার ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়।

আজ কলকাতার আবহাওয়া আগামী 24 ঘণ্টা পর্যন্ত মেঘলা থাকবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা বিকেল অথবা সন্ধ্যার দিকে রয়েছে। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩২ ও ২৬ ডিগ্রির আশেপাশে থাকতে পারে।

গত মঙ্গলবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল স্বাভাবিকের থেকে ২.১ ডিগ্রি কম অর্থাৎ ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া দপ্তর কর্তৃক জানা গেছে আগামী তিন দিনের মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের জেলার তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি থেকে ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত বেড়ে যেতে পারে। ভোটের দিন কালকে থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

এই বছর বর্ষা কেরলে এসে উপস্থিত হবে আগামী ১ জুন তারিখে। তবে বাংলায় কবে বর্ষা ঢুকবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত বার্তা হাওয়া অফিস থেকে এখনো জানানো হয়নি। অন্যান্য বছরগুলিতে ১১ জুনের মধ্যে  বর্ষা প্রবেশ করে যায়। তবে বাংলায় ফাইনালি ভাবে কবে বর্ষা ঢুকছে সেই ব্যাপারে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর সক্রিয়তা দেখে বলা যাবে।

গুরুত্বপূর্ণ নথি (Important Documents)

WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হনযুক্ত হন